পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৮ জানুয়ারি ২০১৮

মাননীয় মন্ত্রী

জনাব আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ১লা জানুয়ারি ১৯৪৪ সালে পিরোজপুর জেলাধীন ভান্ডারিয়া উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। আনোয়ার হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভূগোল পদার্থবিদ্যা ও গণিতে অনার্স ডিগ্রী লাভ করেন। পরবর্তী সময়ে তিনি ওয়াশিংটন ডিসি হতে জর্জটাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্কে বিশেষ ছাত্র হিসেবে এম.এস করেন ।

 

পানি সম্পদ মন্ত্রী হিসেবে তার দায়িত্ব গ্রহণের আগে তিনি বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৮৫ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী এবং ১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত যোগাযোগ মন্ত্রী ছিলেন।  তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভায় ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত  যোগাযোগ মন্ত্রী এবং ২০১৪ হতে ২০১৮ সাল পর্যন্ত পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

মন্ত্রী হিসেবে, তার সাফল্য ৭৪০ থেকে ২৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি এবং বঙ্গবন্ধু সেতুর সফল সমাপ্তি। যোগাযোগ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে রেলওয়ে এবং সড়কপথে যোগাযোগ চালু হয়। ১৯৯৬ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভায় যোগাযোগ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে বঙ্গবন্ধু সেতুর সফল সমাপ্তিসহ সমগ্র দেশের বিশেষ করে দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী ভূমিকা রাখেন, এ সময় তার হাত ধরে গাবখান, দোয়ারিকা, শিকারপুর, চীন মৈত্রি সেতুসহ অসংখ্য ছোট-বড় সেতু, ব্রিজ-কালভার্ট, বিভাগ ও জেলা শহর ভিত্তিক হাইওয়ে রাস্তা, পৌরসভা-উপজেলা ভিত্তিক অসংখ্য ছোট বড় রাস্তা নির্মাণ ও রক্ষণাকেক্ষণের মাধ্যমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সফল যোগাযোগ মন্ত্রী হিসেবে সর্বস্তরে সমাদৃত হয়েছেন।

 

তিনি জিএস ও পরে ফজলুল হক হলের ছাত্রসংসদের ভিপি, ছাত্রলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সভাপতি এবং জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ছিলেন। তিনি পিরোজপুর জেলার ভাণ্ডারিয়া-কাউখালী আসনে প্রতিনিধিত্ব ১৯৮৬, ১৯৮৮, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ এবং ২০১৪ সালে ছয় বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

 

আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশের সংবাদপত্র জগতে অন্যতম সফল এক ব্যক্তি । তিনি ১৯৭২ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত, তাঁর পিতা তোফাজ্জল হোসেন (মানিক মিয়া) দ্বারা প্রতিষ্ঠিত জনপ্রিয় বাংলা পত্রিকা দৈনিক ইত্তেফাক এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ।

 

জনাব হোসেন এখন জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান ।


Share with :
Facebook Facebook